Logo
 বর্ষ ১১ সংখ্যা ৩০ ৪ঠা মাঘ, ১৪২৫ ১৭ জানুয়ারী, ২০১৯ 
প্রচ্ছদ কাহিনী/প্রতিবেদন
এই সময়/রাজনীতি
ডায়রি/ধারাবাহিক
স্বাস্থ্য
খেলা
প্রতিবেদন
সাহিত্য সংস্কৃতি
বিশ্লেষন
সাক্ষাৎকার
প্রবাসে
দেশজুড়ে
অনুষ্ঠান
ফিচার ও অন্যান্য
নিয়মিত বিভাগ
দেশের বাইরে
প্রতিবেদন
 
http://sadiatec.com/
প্রচ্ছদ প্রতিবেদন: সিরিয়াস-এর সিরিয়াস রিসার্চ!  

রোকন উদ্দিন

 

ধরেন, কোনো অনুষ্ঠানে এলাকাবাসীর নিমন্ত্রণঅনেক বিশিষ্ট ব্যক্তিও আসবেনসকলেই দেখতে চান খাবারের টেবিলে আতপ চালের ভাতওই চাল এলাকায় একটিমাত্র প্রতিষ্ঠান বিক্রি করেঅনেকেই জানেন তাদের এই চালে ভেজাল আছেতখন গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে তাদের আতপ চালের প্যাকেটযেন লোকজন ভাত খেতে বসে সন্দেহ প্রকাশ করলে প্যাকেটটা দেখানো যায়মাঝখান থেকে বেঁচে যাচ্ছে এবং লাভবান হচ্ছে ওই প্রতিষ্ঠানআমাদের অবস্থাও তেমনআমরাও তাই করছিএভাবেই একটি প্রতিষ্ঠানের কাজের বর্ণনা দিলেন দেশের মিডিয়া জগতের বিখ্যাত একজনযে প্রতিষ্ঠানটির সম্পর্কে বললেন, সেটা সিরিয়াস মার্কেটিং এ্যান্ড সোশ্যাল রিসার্চতারা দেশের বাজারে বিভিন্ন পণ্য এবং তার বিপণনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সব বিষয়ে জরিপধর্মী গবেষণা করে থাকেতাদের গবেষণার মধ্যে আমাদের দেশের মিডিয়া বিষয়ে জরিপও অন্যতমতারা তাদের গবেষণায় টেলিভিশন, রেডিও, দৈনিক পত্রিকা, ম্যাগাজিন, দেশীয় সিনেমা, মোবাইল ফোন, ইন্টারনেট ইত্যাদি বিষয়ে দর্শক এবং পাঠকের অভিব্যক্তি তুলে ধরেপ্রতি সপ্তাহে তারা দেশীয় টেলিভিশন চ্যানেলের রেটিং করে থাকেএই জরিপগুলো বিক্রি করা হয় মিডিয়ার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ বড় বড় প্রতিষ্ঠানের কাছেতাদের এই জরিপের ওপর অনেকাংশে নির্ভর করে দেশের একটি বিরাট শিল্প- মিডিয়াযে কোনো মিডিয়া প্লানের জন্য তাদের জরিপ গুরুত্বপূর্ণকিন্তু তাদের এই মিডিয়া জরিপ বিশেষ করে টেলিভিশন চ্যানেলের রেটিং নিয়ে রয়েছে নানা প্রশ্নতারপরও অনেকটা বাধ্য হয়েই তাদের জরিপ কিনতে হচ্ছে, এমন অভিযোগ করেছেন অনেকেইকারণ বাংলাদেশে এমন গবেষণায় তারাই একমাত্র প্রতিষ্ঠান

 

সিরিয়াস মার্কেটিং এ্যান্ড সোশ্যাল রিসার্চ

১৯৯৫ সালের জুন মাসে বাংলাদেশে সিরিয়াস মার্কেটিং এ্যান্ড সোশ্যাল রিসার্চ-এর যাত্রা শুরু হয়তারা ইন্ডিয়ান মার্কেটিং রিসার্চ ব্যুরো ইন্টারন্যাশনালের (আইএমআরবি) একটি সহযোগী প্রতিষ্ঠানআইএমআরবি ইন্টারন্যাশনাল আবার বিশ্বের ৩য় বৃহত্তম মার্কেট রিসার্চ প্রতিষ্ঠান কান্তার গ্রপের সদস্য

শুরু থেকেই তারা দুধরনের গবেষণা করে- মার্কেট রিসার্চ এবং সোশ্যাল রিসার্চমার্কেট রিসার্চ দুই ধরনের হয়ে থাকে- কনজুমার (ভোক্তা বা গ্রাহক) রিসার্চ এবং মিডিয়া রিসার্চকনজুমার রিসার্চে থাকে বিভিন্ন পণ্য নিয়ে ভোক্তাদের আগ্রহ, অভিব্যক্তি, গ্রহণ, বর্জন সংক্রান্ত বিষয়মিডিয়া রিসার্চে থাকে ন্যাশনাল মিডিয়া সার্ভে এবং  টেলিভিশন দর্শক ট্রাকিং বা টেলিভিশন রেটিং

এছাড়া তারা ইন্ডাস্ট্রিয়াল, কর্পোরেট ইমেজ, ট্রেড এ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন, ফার্মাসিউটিক্যাল ইত্যাদি বিষয়েও গবেষণা করে থাকেএগুলো সাধারণত গ্রাহক চাইলে করে দেয়া হয়

 

ব্যবহৃত জনবল এবং প্রযুক্তি

সিরিয়াসের প্রধান কার্যালয় ঢাকায়এছাড়া তাদের পাঁচটি ফিল্ড অফিস রয়েছেসেগুলো চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট এবং বরিশালে অবস্থিতসিরিয়াসের অফিস থেকে প্রাপ্ত তথ্যমতে, তাদের সার্বক্ষণিক কর্মকর্তার সংখ্যা ৪৪এছাড়া রয়েছে ৬০ জন সুপারভাইজার, ২০ জন কন্ট্রোলার এবং ৩০০-এর বেশি অনিয়মিত সাক্ষাৎকার গ্রহণকারীসিরিয়াসের সব গবেষণাই পরিচালিত হয় সাক্ষাৎকারভিত্তিকতারা নিজস্বভাবেই বেশিরভাগ গবেষণা পরিচালনা করে থাকেকিছু গবেষণা করা হয় তাদের গ্রাহকের চাহিদা অনুযায়ী

সিরিয়াসের বিভিন্ন গবেষণায় এবং জরিপে ব্যবহৃত সফটওয়ারগুলো আইএমআরবি ইন্টারন্যাশনালের কাছ থেকে পাওয়াএর মধ্যে মিডিয়া এক্রপ্রেস থ্রি, এসপিএসএস, এমওএস, কোয়ান্টাম অন্যতমএছাড়া নিজেরাও তাদের প্রয়োজনে কিছু সফটওয়ার তৈরি করে নেয়, যেমন থিংকমিডিয়াবর্তমানে টেলিভিশন রেটিংয়ের জন্য পিপল মিটার নামে একটি যন্ত্র ব্যবহৃত হয়

 

ন্যাশনাল মিডিয়া সার্ভে এবং টেলিভিশন রেটিং

এ দুটি সিরিয়াসের সবচেয়ে ব্যবসাসফল গবেষণান্যাশনাল মিডিয়া সার্ভেতে বাংলাদেশের সব পত্রিকা, ম্যাগাজিন, টেলিভিশন চ্যানেল, এফএম রেডিও, সিনেমা, কম্পিউটার, ইন্টারনেট, মোবাইল ইত্যাদি বিষয়ে ভোক্তা, দর্শক ও শ্রোতাদের আগ্রহ এবং পছন্দ-অপছন্দের বিষয় তুলে ধরা হয়দৈবচয়ন ভিত্তিতে সকলের কাছে জানতে চাওয়া হয় তাদের দৃষ্টিভঙ্গিএটি অনেক বড় একটি কাজএখানে সমস্ত বিষয় বিভিন্ন ক্যাটাগরি, যেমন দেশের ছয়টি বিভাগ, পরিবার, ব্যক্তি, বয়স ইত্যাদি অনুযায়ী দেখান হয়সিরিয়াসের উদ্যোগে ২০০২, ২০০৫ এবং ২০০৮ সালে এই জরিপ পরিচালিত হয়প্রথম দুইবারের জরিপ এখন পর্যন্ত প্রকাশিত২০০৮ সালের জরিপ এ মাসেই প্রকাশিত হবেসিরিয়াস অফিস থেকে পাওয়া তথ্যমতে, এবারের জরিপে ১৩ হাজার ব্যক্তির মতামত নেয়া হয়েছেএই জরিপটি কিনতে হলে যে কোনো প্রতিষ্ঠানকে ব্যয় করতে হবে চার লাখ টাকা

টেলিভিশন রেটিংয়ে দর্শকদের টেলিভিশন দেখার প্রবণতা নির্ণয় করা হয়এটি ঢাকা শহরভিত্তিক একটি জরিপপ্রতি সপ্তাহে কোন চ্যানেল দর্শক বেশি টিউন করছেন তা দেখানো হয় এই রেটিংয়েসিরিয়াসের ভাষায় যাকে বলা হয় স্ট্রিপ (সিরিয়াস টেলিভিশন রেটিং ইন্ডিকেটর পয়েন্ট)এই রেটিং নির্ণয়ের জন্য সিরিয়াস আগে ব্যবহার করত ডায়েরি মেথডডায়েরি মেথডে বিভিন্ন পরিবারের কাছে একটি ডায়েরি দিয়ে আসা হতোপরিবারের সদস্যরা প্রতিদিন কোন চ্যানেল কতক্ষণ দেখছেন, তা ঐ ডায়েরিতে লিখে রাখতেনসপ্তাহান্তে সিরিয়াসের পক্ষ থেকে সেই ডায়েরি সংগ্রহ করে আরেকটি ডায়েরি দিয়ে আসা হতোতাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে করা হতো টেলিভিশন চ্যানেলের রেটিংসিরিয়াস অফিস জানায়, তারা প্রায় এক হাজার ৮০০ লোকের কাছে এমন ডায়েরি সরবরাহ করতএ বছরের মার্চ মাস থেকে এই জরিপে পিপল মিটার নামে একটি অত্যাধুনিক যন্ত্র ব্যবহার করা হয়এটি একটি ছোট ইলেক্ট্রনিক ডিভাইসএটি টেলিভিশনের পেছনে লাগানো থাকেছোট্ট একটি যন্ত্র থাকে টেলিভিশনের ওপর এবং একটি রিমোটপরিবারের প্রতি সদস্যের জন্য রিমোটে আলাদা আলাদা বাটন থাকেযে কেউ টেলিভিশন দেখার আগে ঐ বাটন চেপে টেলিভিশন দেখা শুরু করবেনতখন তিনি কী কী চ্যানেল দেখছেন তা পিপল মিটারে রেকর্ড হয়ে যায়পরিবারের অন্য সদস্যরাও টেলিভিশন দেখার আগেও একইভাবে তার জন্য নির্দিষ্ট বাটন চেপে টেলিভিশন দেখবেনসপ্তাহ শেষে পিপল মিটারে পাওয়া তথ্য থেকে টেলিভিশন রেটিং নির্ণয় করা হয়সিরিয়াস অফিস জানায়, তারা ১২৫ থেকে ১৩০টি পরিবারের কাছে পিপল মিটার সরবরাহ করেছেপ্রতি পরিবারে ৪ জন করে সদস্য থাকলে তারা ৫০০ র কিছু বেশি লোকের তথ্য পেয়ে থাকেনএই তথ্যের ওপর ভিত্তি করেই তারা নির্ণয় করেন টেলিভিশন রেটিংতাদের ভাষায় টিভিআর (টেলিভিশন রেটিং)এখানে তারা গ্রাহককে জানায়, কোন সপ্তাহের প্রতি পাঁচ সেকেন্ডে কোন চ্যানেল কোন বয়সের কতজন দর্শক দেখছেনটিভিআরের আবার কয়েকটি প্যাকেজ রয়েছেপ্যাকেজ অনুসারে এই জরিপ পেতে চাইলে যে কোনো প্রতিষ্ঠানকে বার্ষিক ফি দিতে হবে ৪ থেকে ৭ লাখ টাকা

 

টেলিভিশন রেটিং নিয়ে প্রশ্ন

সিরিয়াস অনেক সিরিয়াস বিষয়ে জরিপ করে তা না বললেও চলেকিন্তু তাদের টেলিভিশন রেটিং নির্ণয়ের ভিত্তিটাই দাঁড়িয়ে আছে কয়েকটি প্রশ্নের ওপরসিরিয়াসের গ্রাহকদের প্রায় সকলেরই এমন অভিমততারাও বহুবার এই বিষয়গুলো জানিয়েছেন সিরিয়াস কর্তৃপক্ষকেকিন্তু প্রতিবারই তারা তা উপেক্ষা করে গেছেন

- প্রথম প্রশ্ন, তাদের বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়েআজ পর্যন্ত তারা কোনো গ্রাহককে ডায়েরি মেথড বা পিপল মিটারের স্যাম্পল কপি দেখাতে পারেনিকোনো বাসার ঠিকানা দিতে পারেনি, যেখানে ডায়েরি মেথড মেনে চলা হতো বা এমন একটি বাসার ঠিকানা যেখানে বর্তমানে পিপল মিটার আছেআজ পর্যন্ত কারও কাছে জিজ্ঞেস করে কোনো গ্রাহক শোনেননি তার বাসায় ডায়েরি মেথড মানা হতো অথবা পিপল মিটার আছে বা স্থাপনের জন্য লোক গেছেঢাকা শহরে নতুন কিছু এলে খুব সহজেই তা লোকজনের মুখে মুখে চলে যায়এক্ষেত্রে তা হয়নি

- একই কারণে জানা যায় না কোন শ্রেণীর দর্শকদের মতামতের ভিত্তিতে টেলিভিশন রেটিং নির্ণয় করা হয়সব শ্রেণীর লোকজনের অংশগ্রহণ সেখানে ছিল বা এখনো আছে কিনা তাও প্রশ্নসাপেক্ষ

- সিরিয়াস টেলিভিশন রেটিং নির্ণয় করে ১২৫টি পিপল মিটার দিয়েপ্রতি সপ্তাহেই ১২৫ পরিবারের কাছ থেকে তথ্য পাওয়া যায়কিন্তু এ ১২৫টি পরিবার কি প্রতি সপ্তাহে একই থাকে, মানে ঘুরেফিরে বারবার তারাই? যদি এই ১২৫টি পরিবার পরিবর্তিত হয়, তাহলে আগের পরিবারগুলোর কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের স্যাম্পল কপিও কি তারা প্রকাশ করতে পারে না?

- টেলিভিশন রেটিংয়ে নমুনা আকার অত্যন্ত ছোটতাও আবার শুধু ঢাকাভিত্তিকঢাকার জনসংখ্যা বর্তমানে এক কোটির ওপরে কিন্তু মাত্র ১২৫টি পিপল মিটার দিয়ে টেলিভিশন রেটিং নির্ণয় কতটা যুক্তিযুক্ত, তাও প্রশ্নসাপেক্ষ

- যে পরিবারে পিপল মিটার দেয়া আছে, তাদের সকল সদস্য টেলিভিশন দেখার আগে যে তার জন্য নির্ধারিত বাটন চেপে নিচ্ছেন তার নিশ্চয়তা কোথায়? পরিবারের কোনো সদস্য বাটন চাপার পর আরেকজন বাটন চেপে না দেখলে তার টিউনিং করা চ্যানেল যোগ হবে পূর্বজনের হিসাবেতাহলে বয়সভিত্তিক জরিপ হচ্ছে কিভাবে?

- আর একটি সমস্যা হচ্ছে, কেবল নেটওয়ার্কদাতা প্রতিষ্ঠান বিষয়কআমাদের টেলিভিশনে মাঝেমধ্যেই দেখা যায় বিভিন্ন চ্যানেলের নম্বর পরিবর্তনযেমন এখন ২ নম্বরে দেয়া আছে সনি টিভি, এক সপ্তাহ পরে সেখানেই দেখা যাবে স্টার মুভিজদেখা যাবে, সনি টিভি চলে গেছে ৩২ নম্বরেসেক্ষেত্রে পিপল মিটার কিন্তু ২ নম্বরে সনি টিভি হিসাবেই টিউনিং গণনা করবেসিরিয়াস এই সমস্যারও কোনো সঠিক সমাধান দিতে পারেনিকেবল নেটওয়ার্কদাতা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে তাদের কোনো সমন্বয় নেই  এ বিষয়ে কথা হয় বাংলাদেশ কেবলস অপারেটর এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আনোয়ার পারভেজের সঙ্গেতিনি বলেন, ‘আমরাও শুনেছি সিরিয়াস-এর কথাতারা আগে ডায়েরি মেথডে টিআরপি নির্ণয় করতএখন নাকি পিপল মিটার ব্যবহার করেকিন্তু আজ পর্যন্ত আমাদের কোনো অপারেটর বা সাবস্ক্রাইবার বলতে পারে না, কোন বাসায় এই পিপল মিটার বসানো আছেআমাদের প্রতিষ্ঠানের নিবন্ধিত সদস্য প্রায় ৩ হাজার ৮০০আমরা কেউই বিষয়টি সম্পর্কে জানি না১৯৯৫ সালের আগস্ট মাস থেকে আমাদের সংগঠন শুরু করেছিসিরিয়াস-এর পক্ষ থেকে আজ পর্যন্ত আমাদের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করা হয়নি

- এখন সারা দেশের পাড়া-মহল্লায় ছড়িয়ে পড়েছে কেবল নেটওয়ার্ক বা ডিশকিন্তু জরিপ হচ্ছে ঢাকাভিত্তিকএ বিষয়ে সিরিয়াসের পক্ষ থেকে বলা হয়, তারা কেবলমাত্র শুরু করেছেনধীরে ধীরে তারা ছড়িয়ে পড়বেন সারা দেশে

কিন্তু প্রশ্ন হলো আপনি গবেষণা করছেন অন্যদের কাজ নিয়ে, নিজেরা পুরোপুরি প্রস্তুতি না নিয়ে? ১৩ বছর ধরে কাজ করে বলছেন কেবল শুরু করেছেনআপনার কম প্রস্তুতি, কম যোগ্যতার মূল্য কেন দিতে হবে অন্য প্রতিষ্ঠানকে?

- টেলিভিশন রেটিং পয়েন্ট নিয়েও আছে বিতর্কমাঝে মাঝে দেখা যায়, রেটিংয়ের পরিবর্তন খুবই সামান্যএক সপ্তাহে কোনো চ্যানেলের রেটিং ০.২৩ হলে, পরের সপ্তাহে ০.১৮, তারপরের সপ্তাহে ০.২৯একটি ফরমেট জানা থাকলে এমনটি খুব সহজেই করা সম্ভব বলে মনে করেন অনেক গ্রাহকআবার হঠাৎ করেই দেখা যায়, কোনো চ্যানেলের আকস্মিক উত্থান, যার কোনো স্বাভাবিক কারণ নেইযেমন এ বছরের ১৯তম সপ্তাহে অর্থাৎ মে মাসের ৩য় সপ্তাহে টেলিভিশন রেটিংয়ে চ্যানেল ওয়ান ছিল এক নম্বরেসাধারণ চোখে যা মেনে নেয়া বেশ কঠিনএ সপ্তাহে ওই চ্যানেলে এমন কোনো অনুষ্ঠান ছিল না, যার কারণে তাদের দর্শক এত বেড়ে যাবেঅভিযোগ আছে, অনেক সময় টাকার লেনদেনের মাধ্যমেও এই রেটিংয়ের পরিবর্তন হয়

 

কোড অব কন্ডাক্ট কিন্তু...

আন্তর্জাতিকভাবে মার্কেট রিসার্চের কিছু কোড অব কন্ডাক্ট বা বিধিনিষেধ আছেসিরিয়াসের পক্ষ থেকে বলা হয়, তারা আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত কোড অব কন্ডাক্ট পুরোপুরি মেনে চলেসে কারণেই টেলিভিশন রেটিংয়ের ক্ষেত্রে যাদের ওপর জরিপ করা হয়, তাদের পরিচয় গোপন রাখা হয়এক্ষেত্রে মনে রাখতে হবে, পরিচয় গোপন রাখা কোনো পুঁজি নয়যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য কিংবা পাশের দেশ ভারতেও এমন জরিপ করা হয়সেখানেও পরিচয় গোপন রাখা হয়

পরিচয় প্রকাশ না করা বা গোপন রাখা কোড অব কা-াক্টঅনুযায়ী ঠিকই আছেআমরাও বিশ্বাস করি এটা প্রকাশ করতে গবেষণা প্রতিষ্ঠান বাধ্য নয়সাংবাদিকতার ক্ষেত্রেও তথ্যের উৎস বা সোর্সের পরিচয় প্রকাশ করা হয় নাকিন্তু সংবাদপত্রের কোনো রিপোর্ট নিয়ে যদি প্রশ্ন ওঠে, যদি প্রশ্ন দেখা দেয় তথ্যের সত্যতা নিয়ে? সে ক্ষেত্রে কিন্তু সাংবাদিক বা সংবাদপত্রের জবাবদিহি করতে হয়যদি সেই রিপোর্টের আংশিকও অসত্য হয়, উদ্দেশ্যমূলক হয়, তাহলে বিষয়টি স্বীকার করতে হয়, দুঃখ প্রকাশ করতে হয়আদালতের শাস্তির ব্যাপারটিও চলে আসতে পারে সংবাদপত্রের ওপরসে ক্ষেত্রে অতি গুরত্বপূর্ণ গবেষণা প্রতিষ্ঠান সিরিয়াসকী করছে!

সিরিয়াসের সিনিয়র ম্যানেজার সমীর কুমার পালকে ই-মেইলে প্রশ্ন পাঠালে তিনি সাপ্তাহিক সম্পাদককে ফোন করে বলেন, এই প্রশ্ন কেন করছেনএগুলো কোনো প্রশ্ন হলো নানা জেনে প্রশ্ন করছেনএসব প্রশ্ন করার কোনো অধিকার আপনাদের নেই

এটা কি একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠানের উত্তর? আপনাদের যদি কোনো দুর্বলতা না থাকে, তবে যে কোনো প্রশ্নের উত্তর দিতে আপনাদের এত ভয় কেন? আতঙ্কিত এবং উত্তেজিত হয়ে পড়ছেন কেন? থলের বেড়াল বের হয়ে আসছে বলে!

আমরা আপনাদের সম্পর্কে যা জানি না, প্রশ্নের উত্তর দিয়ে সেটা জানালেই তো সমস্যার সমাধান হয়ে যায়সাপ্তাহিক-কে, সম্পাদককে, রিপোর্টারকে দেখে নেয়ার হুমকি দিয়ে আপনারা কী বোঝাতে চাইছেন? এক সময় আমরা এমন হুমকি পেতাম হাজারী, শামীম ওসমান, পিন্টুদের কাছ থেকেএখন পাচ্ছি গবেষণা প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে!

১২৫টি পিপল মিটার দিয়ে টেলিভিশনের রেটিং করছেনমাত্র ১২৫টি পরিবার টেলিভিশন দেখল কী না দেখল তার ওপর ভিত্তি করে পরিচালিত হচ্ছে এত গুরুত্বপূর্ণ গবেষণা!  কোনো বাড়িতে অতিথি বেড়াতে এসেও রিমোট হাতে নিয়ে একের পর এক চ্যানেল পরিবর্তন করতে থাকেনআপনাদের নির্বাচিত ১২৫টি পরিবারের কি এমন ঘটনা ঘটে না? সে ক্ষেত্রে আপনারা কি করেন? আপনাদের কি মনে হয় না, বিশাল একটা ফাঁকি আছে এই গবেষণায়? বড় রকমের প্রশ্ন তোলার সুযোগ আছে? সে কারণেই আমরা প্রশ্নগুলো তুলেছিআপনারা জবাব দিলে, ব্যাখ্যা দিলে সেটা প্রকাশ করবজবাব না দিলে সেটাও প্রকাশ করবআমরা সত্য এবং বস্তুনিষ্ঠতায় বিশ্বাস করিঅসত্য এবং অনৈতিক যেকোনো কিছুর বিপক্ষে আমাদের অবস্থান খুব স্পষ্টযত হুমকিই আসুক আমাদের অবস্থানের কোনো পরিবর্তন হবে না

 

আমাদের গ্রাহক এখনো কোনো অভিযোগ জানাননি

আমের আব্দুল ওহাব

ব্যবস্থাপনা পরিচালক, সিরিয়াস মার্কেটিং এ্যান্ড সোশ্যাল রিসার্চ

 

সাপ্তাহিক : খুব শিগগিরই সিরিয়াস ন্যাশনাল মিডিয়া সার্ভে ২০০৮ প্রকাশিত হবে...

আমের আব্দুল ওহাব : ন্যাশনাল মিডিয়া সার্ভের সব কাজ শেষ হয়ে গেছেএই মাসের ৭ তারিখে তা প্রকাশিতও হয়েছে

সাপ্তাহিক : সিরিয়াস ন্যাশনাল মিডিয়া সার্ভের মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয় কীভাবে তত্ত্বাবধান করে?

ওহাব : সার্ভের শুরুতে মেথডোলজির বিষয়টির ব্যাখ্যা দেয়া আছে

সাপ্তাহিক : কোন মেথডোলজি তা কি সংক্ষেপে জানতে পারি?

ওহাব : সার্ভে রিসার্চে সাধারণত যেমন মেথডোলজি ব্যবহার করা হয়, তেমনটাই ব্যবহার করা হয়েছেএ ধরনের রিসার্চ আমরা আরও করেছিপ্রাইভেট প্রতিষ্ঠানের জন্য অনেক রিসার্চ করেছিতারা অনেক বেশি সচেতনবাইরের এক্সপার্টরাও তাদের সঙ্গে থাকেনতারাও আমাদের মেথডোলজি সম্পর্কে জানেন

সাপ্তাহিক : আপনারা দেশের টেলিভিশন চ্যানেলের রেটিং করে থাকেনএক্ষেত্রে আগে ডায়েরি মেথড ব্যবহার করতেন, এখন ব্যবহৃত হয় পিপল মিটারআপনাদের অনেক গ্রাহক অভিযোগ করেন, আজ পর্যন্ত আপনারা তাদের একটিও স্যাম্পল রিপোর্ট দেখাতে পারেননিকোনো বাসার ঠিকানাও দেননি, যার মাধ্যমে তারা নিশ্চিত হতে পারেন যে এমন জরিপ হচ্ছে

ওহাব : এক্ষেত্রে দুটি কথা বলবÑ প্রথমত, আমাদের কোনো গ্রাহক এখনো কোনো অভিযোগ জানাননিদ্বিতীয়ত, আমরা ইন্টারন্যাশনাল মার্কেট রিসার্চের কোড অব কন্ডাক্ট মেনে চলিসেখানে উল্লেখ আছে, যাদের মাঝে আমরা এমন জরিপ করি তাদের পরিচয় গোপন রাখতে হবেএর বাইরে আমরা যেতে পারব নাআমরা যদি তাদের পরিচয় জানাই তাহলে দেখা যাবে, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান তাদেরকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করছেবাড়িতে বাড়িতে উপহার পাঠাচ্ছে

সাপ্তাহিক : টেলিভিশন রেটিংয়ের ক্ষেত্রে আপনাদের স্যাম্পল সাইজ অনেক কম, বলেন অনেকেই

ওহাব : আমাদের বর্তমানে পিপল মিটারের সংখ্যা ১২৫ বা ১৩০ হবেআমরা কেবল শুরু করলামকিছুদিনের মধ্যে আরও বাড়াবমুম্বাইয়ের মতো শহরেই শুরু হয়েছিল ২৫০টি পিপল মিটার দিয়ে

এরপর তিনি আর কোনো প্রশ্নের জবাব দেননিপ্রতিবেদকের মোবাইল নম্বর নেন এবং তার সঙ্গে অফিসের পক্ষ থেকে যোগাযোগ করা হবে বলেন

 

পরবর্তীতে...

কিছুক্ষণ পরে এই প্রতিবেদকের মোবাইলে ফোন করেন সিরিয়াসের সিনিয়র ম্যানেজার (মিডিয়া রিসার্চ) সমীর কুমার পালতিনি সাপ্তাহিক সম্পাদকের ফোন নম্বর চেয়ে নেন

কয়েকদিন পার হয়ে গেলেও তারা আর কোনো যোগাযোগ করেননিসাপ্তাহিক অফিস থেকে ৭ জুন সন্ধ্যায় সমীর কুমার পালের মোবাইলে ফোন দেয়া হয়তার সঙ্গে যে কথোপকথন হয়..

সমীর কুমার পাল বলছেন?

সমীর কুমার পাল : হ্যাঁ, বলছি

কেমন আছেন?

সমীর : ভালো

সাপ্তাহিক থেকে বলছিলাম...

সমীর : বলেন

আমরা আপনাদের প্রতিষ্ঠান নিয়ে একটি প্রতিবেদন তৈরি করছিকয়েকদিন আপনার সঙ্গে কথাও হয়েছেপ্রতিবেদনের জন্যই জানতে চাচ্ছিলাম ঢাকার বাইরে আপনাদের কতগুলো কার্যালয় আছেএগুলোর কার্যক্রম কীভাবে পরিচালিত হয়আমরা চাইলে সেগুলো দেখতে পারব কিনা...

সমীর : এ তথ্য আপনি কোথা থেকে পেলেনকে দিয়েছে আপনাদের এমন তথ্যসূত্র বলেনকোথা থেকে শিখেছেন সাংবাদিকতা? আপনারা মোটিভেটেড হয়ে কাজ করছেনআপনাদের কোনো প্রশ্নের জবাব আমি দেব নাআপনারা যে সাপ্তাহিক চালান, তা কিছুই নাএরচেয়ে বড় বড় প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আমরা কাজ করিআপনাদের সম্পাদক গোলাম মোর্তোজার সঙ্গে আমার ভালো সম্পর্ক ছিলইউএনডিপির প্রজেক্টে আমরা একসঙ্গে কাজ করেছিআমার সঙ্গে ভালো ভালো কথা বলে আপনারা তথ্য নিয়ে গেছেনআপনাদের ইনটেনশন খারাপআপনাদের সম্পাদকের সঙ্গে আমি কথা বলবআমি তার সঙ্গে মুখোমুখি হতে চাই

এরপর তিনি ফোন রেখে দেন

তারপর তিনি সাপ্তাহিক সম্পাদককে ফোন করে কথা বলেনকেন রিপোর্ট করছি, কী রিপোর্ট করছি ইত্যাদি জানতে চানকথা হয় তারা সাপ্তাহিকের সব প্রশ্নের জবাব দেবেন

ই-মেইলে প্রশ্ন পাঠানো হয়৮ জুন সকালে তিনি সম্পাদককে ফোন করেন এবং নানাবিধ কথা বলে হুমকি প্রদান করেন

 

বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় বিজ্ঞাপনচিত্র ও চলচ্চিত্র নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকীতিনি সিরিয়াস মার্কেটিং এন্ড সোশাল রিসার্চের টেলিভিশন রেটিং সম্পর্কে যা বলেন...

সিরিয়াস যে ১২৫টি পিপল মিটার দিয়ে টিআরপি নির্ণয় করে, তা কোন কোন পরিবারের কাছে থেকে নেয়? সেই পরিবারগুলোর অর্থনৈতিক এবং সামাজিক ব্যাকগ্রাউন্ড- কী? আবার তারা যে ১২৫টি পরিবারের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে টিআরপি নির্ণয় করে, তা কখনই সারা দেশের জন্য প্রযোজ্য হতে পারে নাতারা বলছে, এটি ঢাকা শহরের ওপর ভিত্তি করে করা হয়কিন্তু ১২৫টি পিপল মিটার তো নাখালপাড়ার একটি গলিকেও রিপ্রেজেন্ট করে নাসিরিয়াসের দেয়া টিআরপি নামক বায়বীয় জরিপে আমার আস্থা নেইদর্শকের বেশি দেখা অনুষ্ঠান এবং তাদের দেয়া টিআরপির মধ্যে বাস্তব কোনো মিল নেই

তারা আমার প্রোগ্রামের টিআরপি কখনো খুব বেশি দেখিয়েছে আবার কখনো খুব কমকিন্তু এই বিষয়টি নিয়ে কখনই আমার ভেতর কোনো উত্তেজনা হয়নিআমার কাছে তাদের কোনো গ্রহণযোগ্যতা নেইমাঝে মাঝে তারা এমন কিছু অনুষ্ঠানের টিআরপি বেশি দেখায়, যার সঙ্গে বাস্তবতার কোনো মিল নেইযেমন, গত ঈদে তাদের দেয়া টিআরপিতে রোজিনা পরিচালিত ও অভিনীত একটি নাটক ছিল সবার ওপরেএ থেকেই বোঝা যায় তারা কতটা ভুয়া

আমি মনে করি, এখানে কিছু স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ও জড়িতকিছু প্রোডিউসারের অনুষ্ঠান তাদের দেয়া টিআরপিতে অনেক ওপরে দেখানো হয়, যেগুলো নিয়ে কখনই কোনো আলোচনা হয় নাস্বার্থ সংশ্লিষ্ট কারণে এমন করা হয়

সিরিয়াসের নির্ণয় করা টিআরপিকে আমি একেবারেই গুরুত্ব দেই নাআমি টিআরপি নির্ণয় করি মানুষের কাছ থেকেঅফিসে, বাসায়, ক্যাফেতে, ক্যাম্পাসে, বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে সবাই যা নিয়ে বেশি আলোচনা করছে, আমার মতে তার টিআরপিই বেশিযে ডিভিডি বেশি বিক্রি হচ্ছে, যে অনুষ্ঠান ইন্টারনেট থেকে বেশি ডাউনলোড হচ্ছে, সেটির টিআরপিই বেশিসিরিয়াসের মনগড়া টিআরপি নির্ণয়, কোনো কিছু বোঝায় নাপ্রায়ই তারা ভারতীয় চ্যানেলগুলোর টিআরপি অনেক বেশি দেখায়এটিও উদ্দেশ্যমূলকআমার এমন বক্তব্যের পর, তারা হয়ত আমার অনুষ্ঠানগুলোর টিআরপি অনেক কম দেখাবেকিন্তু বিষয়টি নিয়ে আমি একটুও চিন্তিত নইঅবশ্য তারা যদি চালাক হয়, তবে টিআরপি বেশিও দেখাতে পারে!
Bookmark and Share প্রিন্ট প্রিভিও | পিছনে 
প্রচ্ছদ কাহিনী/প্রতিবেদন
  • পাকিস্তানি গোয়েন্দার চোখে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান -শুভ কিবরিয়া
  • যেভাবে বইটি রচিত হলো -শেখ হাসিনা
  • কোন খণ্ডে কি আছে
  • শ্রমিক আন্দোলন : মজুরি বৃদ্ধিই শেষ কথা নয়! -আনিস রায়হান
  •  মতামত সমূহ
    পিছনে 
     আপনার মতামত লিখুন
    English বাংলা
    নাম:
    ই-মেইল:
    মন্তব্য :

    Please enter the text shown in the image.
    বর্তমান সংথ্যা
    পুরানো সংথ্যা
    Click to see Archive
    Doshdik
     
     
     
    Home | About Us | Advertisement | Feedback | Contact Us | Archive