Logo
 বর্ষ ১১ সংখ্যা ৩০ ৪ঠা মাঘ, ১৪২৫ ১৭ জানুয়ারী, ২০১৯ 
প্রচ্ছদ কাহিনী/প্রতিবেদন
এই সময়/রাজনীতি
ডায়রি/ধারাবাহিক
স্বাস্থ্য
খেলা
প্রতিবেদন
সাহিত্য সংস্কৃতি
বিশ্লেষন
সাক্ষাৎকার
প্রবাসে
দেশজুড়ে
অনুষ্ঠান
ফিচার ও অন্যান্য
নিয়মিত বিভাগ
দেশের বাইরে
প্রতিবেদন
 
http://sadiatec.com/
২০০ এক্সক্লুসিভ ডিস্ট্রিবিউটর ও বিক্রয় প্রতিনিধিদের নিয়ে মার্সেলের কর্মশালা  
পরিবেশক ও বিক্রয় প্রতিনিধিদের পণ্যের বিশেষত্ব সম্পর্কে জানানোর পাশাপাশি প্রেষণা প্রদানের উদ্দেশ্যে দিনব্যাপী ওয়ার্কশপ করেছে মার্সেল। এতে অংশ নেন ফরিদপুর, খুলনা ও যশোর জোনের ২০০ জন এক্সক্লুসিভ ডিস্ট্রিবিউটর ও তাদের বিক্রয় প্রতিনিধিরা। মার্সেলের দিনব্যাপী কর্মশালাটি যশোরের ওরিয়ন ইন্টারন্যাশনাল হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়েছে। কর্মশালায় অতিথিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মার্সেলের নির্বাহী পরিচালক মো. হুমায়ুন কবীর, ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর চিত্রনায়ক আমিন খান, মার্সেলের হেড অব সেলস ড. মো. সাখাওয়াৎ হোসেন, ডেপুটি ডিরেক্টর রবিউল হাসান সুমন, ফার্স্ট সিনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর নুরুল ইসলাম রুবেল, যশোর, খুলনা ও ফরিদপুর অঞ্চলের জোনাল সার্ভিস সেন্টারের প্রধানগণসহ অন্য কর্মকর্তারা।
কর্মশালা আয়োজন প্রসঙ্গে মো. হুমায়ুন কবীর বলেন, যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বিশ্বের অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ব্যাপক বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ইলেকট্রনিক্স, ইলেকট্রিক্যাল ও হোম অ্যাপ্লায়েন্স বাজারে ছাড়ছে মার্সেল। ফ্রিজ, টিভি, এসিসহ বিভিন্ন  পণ্যে প্রতিনিয়ত যুক্ত হচ্ছে বৈচিত্র্যময় ডিজাইন ও কালারের নতুন মডেল। পণ্যের গুণগতমান যেমন উন্নত হয়েছে, তেমনি দামও হয়েছে সাশ্রয়ী। দেশব্যাপী বিস্তৃত ৭০টিরও বেশি সার্ভিস সেন্টারের মাধ্যমে দ্রুত ও সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা নিশ্চিত করা হচ্ছে।
দিনব্যাপী কর্মশালার আয়োজনের প্রধান উদ্দেশ্য হচ্ছে- মার্সেল পণ্যের বিশেষত্ব সম্পর্কে পরিবেশক ও তাদের বিক্রয় প্রতিনিধিদের সঠিক ধারণা দেয়া। যেন তারা ক্রেতাদের সামনে সেগুলো সঠিকভাবে তুলে ধরতে পারে।
মার্সেলের হেড অব সেলস ড. মো. সাখাওয়াৎ হোসেন বলেন, আজকের এই কর্মশালায় পরিবেশকদের মার্সেল পণ্যের বিশেষ দিক সম্পর্কে ধারণা প্রদানের পাশাপাশি বিক্রি বৃদ্ধির ক্ষেত্রেও প্রেষণা দেয়া হয়েছে।


৯ম সামিট ওপেন এবং ২৩তম সামিট কাপ গল্ফ টুর্নামেন্ট ২০১৮
প্রতিবছরের মতো এবারও কুর্মিটোলা গল্ফ ক্লাবে শুরু শেষ হয়েছে ৯ম সামিট ওপেন এবং ২৩তম সামিট কাপ গল্ফ টুর্নামেন্ট। মোট ছয় দিনব্যাপী এবারের টুর্নামেন্টে মোট ৭০০-এরও বেশি অ্যামেচার এবং প্রফেশনাল গল্ফার অংশগ্রহণ করে। এবছর অনুষ্ঠিত গলফ টুর্নামেন্টের প্রফেশনাল গলফ্ারদের প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের পনেরো লাখ টাকার সমমূল্যের পুরস্কার দেয়া হয়। বাংলাদেশ প্রফেশনাল গলফ্ারস এসোসিয়েশন (বিপিজিএ) এবং কুর্মিটোলা গল্ফ ক্লাব (কেজিসি) টুর্নামেন্টটি আয়োজন করে। সামিট গ্রুপ এই টুর্নামেন্টের টাইটেল স্পন্সর। ২৮ ডিসেম্বর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান আয়োজনের মাধ্যমে প্রতিযোগীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হয়। ৯ম সামিট ওপেন এবং ২৩তম সামিট কাপ গল্ফ টুর্নামেন্টের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত, বিবিপি, ওএসপি, এনডিইউ, পিএসসি।
সামিট ওপেন এবং সামিট কাপ গল্ফ টুর্নামেন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত:
কর্পোরেট সামাজিক দায়বদ্ধতা (সিএসআর) কার্যক্রমের অংশ হিসেবে সামিট গ্রুপ বাংলাদেশে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, শিল্প-সংস্কৃতি, ক্রীড়াসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রাখছে। ক্রীড়া ক্ষেত্রে অবদানস্বরূপ সামিট ওপেন এবং সামিট কাপ গল্ফ টুর্নামেন্ট আয়োজনের মাধ্যমে গত দু’দশকেরও বেশি সময় ধরে দেশে গল্ফ খেলাটিকে জনপ্রিয় করার চেষ্টা করে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। ঢাকা ক্যান্টনমেন্টের কুর্মিটোলা গল্ফ ক্লাবের সবুজের সমারোহে আয়োজিত এই টুর্নামেন্টে এ পর্যন্ত উল্লেখযোগ্যসংখ্যক দেশি-বিদেশি গল্ফার অংশ নেন।
Bookmark and Share প্রিন্ট প্রিভিও | পিছনে 
অনুষ্ঠান
  • ব্র্যাক ব্যাংক এবং বিকাশ এর মধ্যে ফান্ড ট্রান্সফার সংক্রান্ত চুক্তি স্বাক্ষর
  •  মতামত সমূহ
    পিছনে 
     আপনার মতামত লিখুন
    English বাংলা
    নাম:
    ই-মেইল:
    মন্তব্য :

    Please enter the text shown in the image.
    বর্তমান সংথ্যা
    পুরানো সংথ্যা
    Click to see Archive
    Doshdik
     
     
     
    Home | About Us | Advertisement | Feedback | Contact Us | Archive