Logo
 বর্ষ ১১ সংখ্যা ৩০ ৪ঠা মাঘ, ১৪২৫ ১৭ জানুয়ারী, ২০১৯ 
প্রচ্ছদ কাহিনী/প্রতিবেদন
এই সময়/রাজনীতি
ডায়রি/ধারাবাহিক
স্বাস্থ্য
খেলা
প্রতিবেদন
সাহিত্য সংস্কৃতি
বিশ্লেষন
সাক্ষাৎকার
প্রবাসে
দেশজুড়ে
অনুষ্ঠান
ফিচার ও অন্যান্য
নিয়মিত বিভাগ
দেশের বাইরে
প্রতিবেদন
 
http://sadiatec.com/
উৎসবের বিপিএল  
মোয়াজ্জেম হোসেন রাসেল

শুরু হয়েছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ষষ্ঠ আসরের খেলা। ৫ জানুয়ারি ২০১৯ প্রথমবারের মতো কোনোরকম উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ছাড়াই মাঠে গড়িয়েছে টোয়েন্টি-২০ ক্রিকেটের এই আসর। ফ্র্যাঞ্চাইজ ভিত্তিক এই আসরে এবার ৭টি দল অংশগ্রহণ করছে। একাদশ জাতীয় সংসদ নিবার্চন শেষে সরগরম হয়েছে দেশের ক্রিকেটপাড়া। বিশেষ করে বিপিএলকে কেন্দ্র করে ফ্র্যাঞ্চাইজি এবং টিম ম্যানেজমেন্টের মধ্যে ফিরে এসেছে প্রাণচাঞ্চল্য। এবারের আসর শুরু হওয়ার আগে প্রস্তুতি নেয়ার খুব একটা সময়ই পায়নি দলগুলো। ২ জানুয়ারি থেকে দলগুলোর প্রস্তুতি শুরু হয়েছে।
এবারের আসরে অংশ নিচ্ছে ঢাকা ডাইনামাইটস, রংপুর রাইডার্স, সিলেট সিক্সার্স, রাজশাহী কিংস, চিটাগাং ভাইকিংস, খুলনা টাইটান্স ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। এবারের বিপিএলে সবচেয়ে কম সময়ের প্রস্তুতি নিয়ে মাঠে নামতে হয়েছে অংশগ্রহণকারী দলগুলোকে। সেটা শুধু জাতীয় নিবার্চনকে কেন্দ্র করেই নয়। বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগ-বিসিএলের কারণেও দলগুলো অন্তত স্থানীয় ক্রিকেটারদের দিয়ে অনুশীলন শুরু করতে পারেনি। বিপিএলের শেষ রাউন্ড বা শিরোপা নির্ধারণ হয়েছে গেল ২৭ ডিসেম্বর ২০১৮। তার পরপরই জাতীয় সংসদ নিবার্চনের আমেজ। দু’য়ে মিলে সাত দলের কোনো দলের স্থানীয় ক্রিকেটাররাও প্রয়োজনীয় সময় পাননি।
এবারের বিপিএলে অংশ নিতে যাওয়া সাত দলের বেশিরভাগেরই কোচ বিদেশি। ঢাকা ডাইনামাইটসের খালেদ মাহমুদ সুজন, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের মোহাম্মদ সালাউদ্দীন ও চিটাগাং ভাইকিংসে নুরুল আবেদিন নোবেলই কেবল স্থানীয়। বাকি চার দলের মধ্যে চ্যাম্পিয়ন রংপুর রাইডার্সে অস্ট্রেলিয়ার টম মুডি, খুলনা টাইটান্সে শ্রীলঙ্কার মাহেলা জয়াবর্ধনে সিলেট সিক্সার্সে পাকিস্তানের ওয়াকার ইউনুস এবং রাজশাহী কিংস দক্ষিণ আফ্রিকান ল্যান্স ক্লুজনার। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ শেষে আবারও মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামেও ফিরে এসেছে পুরনো প্রাণচাঞ্চল্য। খেলোয়াড়দের মেলা বসতে শুরু করেছে।
এবারের আসর অনেকের কাছেই গুরুত্বপূর্ণ। তাদের মধ্যে দেশিদের পাশাপাশি রয়েছেন বিদেশিরাও। আচরণবিধি লঙ্ঘন করার অপরাধে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে ছয় মাসের নিষেধাজ্ঞা কাটাচ্ছেন সাব্বির রহমান। নিষেধাজ্ঞা শেষ হতে আরও এক মাস বাকি। তার আগেই ঘরোয়া ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ বিপিএলে খেলবেন এই ব্যাটসম্যান। জাতীয় লিগ আর বিপিএলে খেললেও গত পাঁচ মাস মানসিক অস্থিরতার মধ্যেই কাটিয়েছেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে দূরে থাকা সাব্বির। স্বপ্ন দেখছেন বিপিএলে ভালো কিছু করতে, যেন নিষেধাজ্ঞা ওঠার পর আবার ফিরতে পারেন জাতীয় দলে।
এর বাইরে বিদেশিদের মধ্যে সবচেয়ে বড় দুটি নাম স্টিফেন স্মিথ ও এ বি ডি ভিলিয়ার্স। এছাড়া এবার সিলেট সিক্সার্সের মূল আকর্ষণ অস্ট্রেলিয়ার ডেভিড ওয়ার্নার। বল টেম্পারিংয়ের অভিযোগে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে তিনিও এখন বহিষ্কৃত, ফিরবেন আগামী মার্চে। তার আগে বিপিএলেই প্রস্তুতিটা সেরে নেবেন সিলেটের অধিনায়ক। নিষেধাজ্ঞার পাঁচ বছর কাটিয়ে ফিরেছেন মোহাম্মদ আশরাফুল। জাতীয় দল ও দলের বাইরে থাকা ক্রিকেটাররা নিজেদের প্রমাণের মঞ্চ হিসেবে দেখছেন বিপিএলকে। নাসির হোসেন, এনামুল হক বিজয় ও তাসকিন আহমেদ অন্যতম। এবার প্রথমবারের মতো সম্প্রচারের দায়িত্ব নিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। থাকছে ডিআরএস সিষ্টেম।

মাঠে এমপি মাশরাফি
মাঠের খেলা চলাকালীন সময়ে বাংলাদেশের প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। ৩০ ডিসেম্বর নড়াইল-২ আসন থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনয়ন পেয়ে সংসদে যাবার টিকিট পেয়েছেন। জাতীয় দলের ওয়ানডে অধিনায়ক এবারও বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রংপুর রাইডার্সের হয়ে মাঠে নেমেছেন। নির্বাচনের ৬ দিনের মাথায় ক্রিকেট মাঠে নামতে হয়েছে নড়াইল এক্সপ্রেসকে। রাজনীতির মাঠ থেকে আবারও খেলার মাঠে ফিরেছেন ম্যাশ। ২৩ ডিসেম্বর ২০১৮ রাজনীতির মাঠে ‘অভিষেক’ হয় বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়কের। রাত-দিন নড়াইলে নির্বাচনী প্রচারণা করেছেন। সেই পুরস্কার পেয়েছেন ৩০ তারিখের ভোটে। ২ লাখ ৭১ হাজার ২ শত ১০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন মাশরাফি। রাজনীতির মাঠে নিজের শুরুর কাজটুকু সেরে আবার মিরপুর মাঠে ফিরেছেন মাশরাফি। নড়াইল থেকে ঢাকায় ফিরে গিয়েছিলেন গণভবনে। সেখান থেকে সোজা মিরপুর শের-ই-বাংলায়। মিরপুরে এখন বিপিএলের কলরব। বাংলাদেশের একমাত্র টোয়েন্টি-২০ ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ বিপিএলের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক মাশরাফি। গতবার মাশরাফির হাতেই উঠেছিল শিরোপা। তবে এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর প্রথমবার মাঠে নেমেছেন মাশরাফি। ২০১২ সালে বিপিএল এর প্রথম আসরে ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের হয়ে শিরোপা জেতেন মাশরাফি। দ্বিতীয় আসরেও ঢাকার হয়ে শিরোপা হাতে তোলেন নড়াইল এক্সপ্রেস। ২০১৪ সালে মাঠে গড়ায়নি বিপিএল। বিলুপ্ত হয় ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্স। ২০১৫ সালে নতুন করে বিপিএল মাঠে গড়ালে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের হয়ে শিরোপা ঘরে তোলেন ক্যাপ্টেন ফ্যান্টাসটিক।

বিপিএলে আশরাফুল
২০১৩ সালে এই বিপিএল দিয়ে পড়েছিয়েলেন নিষেধাজ্ঞার খড়গে। পাঁচ বছর কাটিয়ে আবারও ফিরলেন এখানে। বিপিএলে একসময় ঢাকার ক্রিকেটারই ছিলেন মোহাম্মদ আশরাফুল। কিন্তু এই দলটির হয়েই ফিক্সিংয়ে জড়িয়েছিলেন তিনি। যার জেরে, নিষেধাজ্ঞার খড়গ নেমে আসে আশরাফুলের ওপর। ঘরোয়া ক্রিকেটে আগেই ফিরেছেন। এবার খেলছেন ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট লিগ বিপিএলে। প্লেয়ার্স ড্রাফট থেকে আশরাফুলকে দলে ভিড়িয়েছে চিটাগং ভাইকিংস। আশরাফুল সম্পর্কে খালেদ মাহমুদ সুজন বলেন, ‘আমি মনে করি, আশরাফুলের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ ফিরে আসাটা। এত বছর পর সে ফিরে এসেছে। বাংলাদেশের এক সময়ের সবচেয়ে আশ্চর্য বালক ছিল আশরাফুল। নিষেধাজ্ঞার জন্য মাঠের বাইরে থাকতে হয়েছে দীর্ঘদিন। সুতরাং অবশ্যই তার জন্য মাঠে ফিরে আসাটা গুরুত্বপূর্ণ। ছোট বেলা থেকেই খেলা পাগল একটা ছেলে সে। আমি মনে করি এই বিপিএলটা তার জন্য অনেক বড় সুযোগ, নিজেকে প্রমাণ করার।’

ঔজ্জ্বল্য বাড়িয়েছে যারা
প্রথমবারের মতো বিপিএল খেলছেন বিশ্ব ক্রিকেটের তিন উজ্জ্বল তারকা স্টিফেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার, এ বি ডি ভিলিয়ার্স ও ইমরান তাহির। এর বাইরে ক্রিস গেইল, এলেক্স হেলস, মোহাম্মদ হাফিজের মতো খেলোয়াড়রা রয়েছেন এই তালিকায়। সে হিসেবে এবারের বিপিএলকে তারকায় ঠাসা টুর্নামেন্ট বললেও ভুল বলা হবে না। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স স্মিথকে নেয়ার পর কয়েকটি ফ্র্যাঞ্চাইজি এ নিয়ে বিরোধিতা করে। বিপিএলের বাইলজ অনুযায়ী তাদের বিরোধিতা যুক্তিসঙ্গতও ছিল। তবে বিপিএল কমিটি শুরুতে স্মিথকে কেনার ব্যাপারে কোনো বাধা দেয়নি। পরে অন্যান্য দলের বিরোধিতায় বিসিবির শরণাপন্ন হয় তারা। স্মিথ খেলতে পারবেন; শেষ পর্যন্ত এই রায় আসে। আইপিএল, বিগ ব্যাশসহ বিশ্বের জনপ্রিয় লিগে ব্যাট হাতে আলো ছড়িয়েছেন স্মিথ। এবার বিপিএলে ঝলক দেখানোর অপেক্ষা। বল টেম্পারিংয়ের দায়ে এক বছর জাতীয় দল থেকে নিষিদ্ধ হন স্মিথ। দীর্ঘ এই সময়ে জাতীয় দলের জার্সি না জড়ালেও খেলেছেন বিভিন্ন ঘরোয়া টুর্নামেন্টে। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৩০ টোয়েন্টি-২০ খেলা এই তারকার ঝুলিতে আছে ৪৩১ রান। বল টেম্পারিংয়ে জড়িয়ে যাওয়ায় আপাতত জাতীয় দল থেকে দূরে আছেন ওয়ার্নার। তবে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তার পা না পড়লেও নিয়মিত ক্রিকেট চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। দেশের ঘরোয়া ক্রিকেট, ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল) পারফর্ম করেছেন। এবার বিপিএল মাতাতে চান। ২০১৬ সালে আইপিএলে তাকে ক্যাপ্টেনের দায়িত্ব দেয় সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। দেশের হয়ে ৭০ ম্যাচে অংশ নিয়ে করেছেন ১৭৯২ রান। এ বি ডি ভিলিয়ার্স প্রথমবারের মতো আসছেন বিপিএল মাতাতে। তবে পুরো আসরে তাকে পাচ্ছে না রংপুর রাইডার্স। সিলেট পর্বে যোগ দেবেন এ বি ডি ভিলিয়ার্স। তাও আবার সাত ম্যাচের জন্য। প্রোটিয়াদের হয়ে ৭৮ আন্তর্জাতিক ম্যাচে করেছেন ১৬৭২ রান।

বিশ্বকাপের প্রস্তুতি
চলতি বছর অনুষ্ঠিত হবে ওয়ানডে বিশ্বকাপ। তারপরের বছর ২০২০ সালে অনুষ্ঠিত হবে টোয়েন্টি-২০ বিশ্বকাপ। এবারের বিপিএল দিয়ে আগামী টোয়েন্টি-২০ বিশ্বকাপের প্রস্তুতি শুরু করবে বাংলাদেশ। ২০২০ সালে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত হবে আইসিসি টোয়েন্টি-২০ বিশ্বকাপের সপ্তম আসর। এই আসরে বাছাইপর্বে খেলতে হবে বাংলাদেশকে। টোয়েন্টি-২০ বিশ্বকাপ সামনে রেখে এখন থেকেই প্রস্তুতি নিবে বিসিবি। এই টুর্নামেন্টে প্রতিটি খেলোয়াড়ের পারফরম্যান্সের দিকে বিসিবি নজর রাখবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু।

মার্কিন ক্রিকেটার!
পুরো ক্রিকেট দুনিয়ার ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ মানেই বিশ্ব ক্রিকেটের এক মিলনমেলা। একই দলে খেলে থাকেন বিভিন্ন দেশের ক্রিকেটাররা। ব্যতিক্রম নয় বিপিএল। দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় এই আসরে অংশ নিয়ে থাকেন বিশ্বের সব দেশের ক্রিকেটাররা। তারই ধারাবাহিকতায় এবারের আসরে থাকবেন অনেক মাঠ কাঁপানো তারকা। তবে হঠাৎ চোখ আটকে যাবে একটি নামের ওপর। খুলনা টাইটান্স দলের বিদেশি খেলোয়াড় তালিকায় আলী খান নামের ক্রিকেটারটি কোন দেশের, ব্যাটসম্যান নাকি বোলার তা নিয়ে কিছুক্ষণ ভাবতে হয় পাঠকদের। ক্রিকেট দুনিয়ার এই অখ্যাত এই ক্রিকেটারটি ক্রিকেটের জন্য অখ্যাত দেশ আমেরিকা তথা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে আগত। এই প্রথম বেসবল, রাগবি, বাস্কেটবলের দেশ থেকে কোনো ক্রিকেটার অংশ নিচ্ছে বিপিএলে। বাংলাদেশের জন্য আলী খানের অভিজ্ঞতা প্রথম হলেও ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক লিগে তার পদচারণা প্রথম নয়। সদ্যসমাপ্ত বছরে খেলেছেন সিপিএলে ত্রিনিবাগো নাইট রাইডাসের্র হয়ে। এ ছাড়া সংযুক্ত আরব আমিরাতে আয়োজিত টি-১০ লিগে খেলেছেন বেঙ্গল টাইগাসের্র হয়ে। মূলত সিপিএলেই আলী খানের বোলিং চোখে পরে খুলনা দলের। ১২ ম্যাচে ১৬ উইকেট নিয়ে শাহরুখ খানের দলকে শিরোপা এনে দিতে বোলিংয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন ২৮ বছর বয়সী এই বোলার। ঘণ্টায় ১৪০ কিলোমিটার গতিতে বল করতে পারা এই বোলার খুলনার হয়ে খেলার সময় নিজেকে শানিয়ে নিতে গুরু হয়ে দীক্ষা পাবেন মাহেলা জয়াবধর্নের কাছ থেকে।

সর্বকনিষ্ঠ অধিনায়ক মিরাজ
অনূর্ধ্ব-১৯ দলে অধিনায়কত্ব করার পর প্রথমবারের মতো বিপিএলে অধিনায়কত্ব করার সুযোগ এসেছে মেহেদি হাসান মিরাজের সামনে। হাতিরঝিলে নৌকায় ঘুরে লেকের মুক্তমঞ্চে অধিনায়ক হিসেবে নাম ঘোষণা করেন দলটির অন্যতম পৃষ্ঠপোষক শাহরিয়ার আলম। সেখানে নিজ দলের অনেক বড় দায়িত্বই তুলে দেন ‘ছোট’ মিরাজের কাঁধে। মাত্র ২১ বছর ৭০ দিনেই বিপিএলের মতো বড় আসরে অধিনায়কের দায়িত্ব পেলেন এই অফস্পিন অলরাউন্ডার। বয়সের হিসেবে বিপিএলের সর্বকনিষ্ঠ অধিনায়ক এখন তিনি। তার হাত ধরেই প্রথমবার যুব বিশ্বকাপে সেমিফাইনালে খেলে বাংলাদেশ। অনেক ক্রিকেট বোদ্ধাই মনে করেন এই তরুণ এক সময় নেতৃত্ব দিবেন জাতীয় দলেরও। এই নিয়ে তৃতীয়বার রাজশাহী কিংস বিপিএলে অংশ নিচ্ছে। তবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তুললেও একবারো শিরোপা জিততে পারেনি। দলটির ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকরা আশা প্রকাশ করেন এইবার শিরোপা নিয়ে তারা ঘরে ফিরবেন। প্রথমবার নেতৃত্ব পেয়ে একই স্বপ্নের কথা বলেন মিরাজও। রাজশাহী কিংসের সহ-অধিনায়ক করা হয়েছে জাতীয় দলের আরেক তরুণ তারকা সৌম্য সরকারকে। মিরাজের নেতৃত্বে এই দলের বেশির ভাগ ক্রিকেটারই তার চেয়ে বয়সে ও অভিজ্ঞতায়ও বড়। আর সেই কারণেই অধিনায়ক হলেও দলের সিনিয়রদের কাছ পরামর্শ নেয়ার কথা জানিয়েছেন এই অফস্পিনার।

থাকছে ডিআরএস
বিপিএলের অনেকগুলো বিতর্কের মধ্যে আম্পায়ারিং অন্যতম। নিম্নমানের ম্যাচ পরিচালনাকারী সৃষ্টি করেছেন নানা প্রশ্নের। আম্পায়ারিং বিতর্কের পর এবার প্রথমবারের মতো ডিআরএস (ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম) চালু হয়েছে বিপিএলে। ম্যাচে এ ধরনের ব্যবস্থা চালু হওয়ার জন্য মাঠে যে পর্যাপ্ত ক্যামেরার দরকার পড়ে, তা এবার দেখা যাবে প্রতিটি ম্যাচে। বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের টেকনিক্যাল কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস জানান, মাঠে ২৬ থেকে ৩০টি ক্যামেরা থাকবে। এ ছাড়া ডিআরএসের জন্য যে হক আই প্রযুক্তিও থাকছে। গেল বছর নিম্নমানের সম্প্রচার, মাত্রাতিরিক্ত বিজ্ঞাপন, ক্যামেরার বাজে ফ্রেম এবং সম্প্রচারের সঙ্গে জড়িতদের উপস্থাপন ভঙ্গি নিয়ে বেশ সমালোচনা হয়েছিল। এবার তাই বিপিএল সম্প্রচারের প্রযুক্তিগত দিকটি বিসিবির হাতেই থাকছে। তাদের তত্ত্বাবধানেই রিয়েল ইমপেক্ট সংস্থাটি সম্প্রচারের দায়িত্ব নিয়েছে। মাঠে স্পাইডারক্যাম ছাড়াও রোবটিক ক্যামেরা থাকবে বলে নিশ্চিত করেছে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। এ ছাড়া ধারাভাষ্যে ফিরিয়ে আনা হয়েছে নিউজিল্যান্ডের ড্যানি মরিসনকে। বিদেশি ধারাভাষ্যকারদের মধ্যে শ্রীলঙ্কার রোশন অ্যাবেসিঙ্গে এবং পাকিস্তানের আমির সোহেলও থাকছেন। উপস্থাপিকা হিসেবে থাকছেন শ্রাবণ্য তৈৗহিদা।

এক নজরে বিপিএল
আয়োজক দেশ : বাংলাদেশ
প্রশাসক : বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)
ফরম্যাট : টোয়েন্টি-২০
প্রথম আসর : ২০১২
প্রথম আসরে চ্যাম্পিয়ন : ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্স
সর্বশেষ আসর : ২০১৭
সর্বশেষ আসরে চ্যাম্পিয়ন : রংপুর রাইডার্স
টুর্নামেন্ট ফরম্যাট : রাউন্ড রবিন ও প্লে-অফ
এবারের আসরে দলের সংখ্যা : ৭
সবচেয়ে সফল দল : ঢাকা ডায়নামাইটস (৩ বার, ২ বার ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের নামে)
সবচেয়ে বেশি রান : ১৪০০ (মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ)
সবচেয়ে বেশি উইকেট : ৮৩ (সাকিব আল হাসান)
টেলিভিশন সম্প্রচার : গাজী টিভি ও মাছরাঙা টেলিভিশন
ওয়েবসাইট : বিপিএল
২০১৯ বিপিএলে তিন ভেন্যু : ঢাকার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়াম, চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম ও সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম।
২০১৯ আসরের সাতটি দল : চিটাগং ভাইকিংস, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস, ঢাকা ডায়নামাইটস, খুলনা টাইটান্স, রাজশাহী কিংস, রংপুর রাইডার্স, সিলেট সিক্সার্স।
২০১৯ বিপিএলে স্পনসর : ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড ও টিভিএস মোটর কোম্পানি
আন্তর্জাতিক বিশ্বে বিপিএল দেখা যাবে : আফগানিস্তান, ক্যারিবীয় অঞ্চল, মধ্যপ্রাচ্য, নর্থ আফ্রিকা, পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকা, দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান, চীন, রাশিয়া, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও ভারত।
অ্যাপ : র‌্যাবিটহোল বিডি

mhrashel00@gmail.com
Bookmark and Share প্রিন্ট প্রিভিও | পিছনে 
খেলা
 মতামত সমূহ
পিছনে 
 আপনার মতামত লিখুন
English বাংলা
নাম:
ই-মেইল:
মন্তব্য :

Please enter the text shown in the image.
বর্তমান সংথ্যা
পুরানো সংথ্যা
Click to see Archive
Doshdik
 
 
 
Home | About Us | Advertisement | Feedback | Contact Us | Archive