Logo
 বর্ষ ১১ সংখ্যা ২১ ১৯শে কার্তিক, ১৪২৫ ১৫ নভেম্বর, ২০১৮ 
প্রচ্ছদ কাহিনী/প্রতিবেদন
এই সময়/রাজনীতি
ডায়রি/ধারাবাহিক
স্বাস্থ্য
খেলা
প্রতিবেদন
সাহিত্য সংস্কৃতি
বিশ্লেষন
সাক্ষাৎকার
প্রবাসে
দেশজুড়ে
অনুষ্ঠান
ফিচার ও অন্যান্য
নিয়মিত বিভাগ
দেশের বাইরে
প্রতিবেদন
 
http://sadiatec.com/
[পাঠক ভাবনা] তোমার নামেই আমার আরোগ্য  
দিল্লি, নিজাম উদ্দিন আউলিয়ার দরবার, প্রেমিক কবি আমির খশরু কবিতা পড়ছেন আর শায়খ নিজাম উদ্দিন আউলিয়া অশ্রুবর্ষণ করছেন, আমির খশরু নিজাম উদ্দিন আউলিয়াকে জিজ্ঞেস করলেন- হে খোদাপ্রেমী আউলিয়া আপনি অশ্রুবর্ষণ করছেন কেন? হযরত নিজাম উদ্দিন উত্তর দিলেন, হে খশরু তোমার কবিতা শুনে নয়, তোমায় দেখে আমি অশ্রুবর্ষণ করছি, কেননা তোমার নামেই আমার আরোগ্য। তোমায় দেখেই সমস্ত যন্ত্রণা আমার দূর হয়ে যায়। আর তোমায় না দেখলে আমার ভেতর যন্ত্রণার আগুন তৈরি হয়। বিশ্বখ্যাত মসনবী শরীফের লেখক জালাল উদ্দিন রুমিকে ছেড়ে তার ওস্তাদ শামসে তাবরেজ যখন নির্বাসনে চলে গেলেন তখন জালাল উদ্দিন রুমি তার পুত্রকে পাঠালেন, শামসে তাবরেজকে তার সামনে নিয়ে আসতে। শেষ পর্যন্ত সাধক পুরুষ শামস তাবরেজ রুমির কাছে ফিরে এলেন। রুমি বললেন, হে আল্লাহর ওলি আমায় ফেলে আর যাবেন না, আপনি যতদিন ছিলেন না আমি মৃতপ্রায় ছিলাম। শুধু আপনার নামের বন্দনা করতাম। কারণ আপনার নামেই আমার আরোগ্য।
শিরিকে দেখে একপর্যায়ে ফরহাদ বলে দিয়েছিল- আমাকে তুমি যদি কোনো কারণে ভুলে যাও তারপরও আমি বেঁচে থাকব কারণ প্রতি মুহূর্তে আমার জবানে শুধু তোমারই নাম। তোমার জানা নেই শিরি, তোমার নামেই আমার আরোগ্য। মজনুকে যখন জিজ্ঞেস করা হয়েছিল কী কাজ করে তুমি সব ব্যথা ভুলে যাও? মজনুর উত্তর ছিল- শুধু লাইলীর নামের জিকির করতে থাকি। এই নামেই আমার আরোগ্য। কোনোভাবেই যখন ইউসুফ নবীকে জুলেখা আপন করতে পারলো না, তখন সকাল-সন্ধ্যায় শুধু ইউসুফ নামের জব করতো, নবজীবন লাভ করতো। জুলেখার কাছে ইউসুফের নামটাই ছিল আরোগ্য লাভ। দেবদাস যখন কোনোভাবেই পার্বতীকে দেখা থেকে বঞ্চিত থাকতো তখন মদের বোতল নিয়ে মাতাল হয়ে যেতো আর পার্বতী নামের জব করতো। দেবদাসের কাছে পার্বতী নামটাই ছিল আরোগ্য।
গত এক বছর থেকে একাধিক জাতীয় দৈনিক ও সাপ্তাহিক পত্রিকায় রোমান্টিক লেখালেখি করার পর থেকে লক্ষ্য করছি পাঠকরা এ ধরনের রোমান্টিক লেখার প্রতি তাদের সমর্থন ব্যক্ত করছেন। কারণ- প্রত্যেকের যন্ত্রণার কথা একজন লেখক যখন তুলে ধরেন তখন পাঠকরা মনে করেন তাদের কথাই লেখক লিখছেন। বিশেষ করে চ্যানেল আই গ্রুপ থেকে বের হওয়া জনপ্রিয় সাপ্তাহিক পত্রিকা এক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা পালন করছে। এই পত্রিকায় নতুন-পুরাতন পাঠকরা লেখার সুযোগ পাচ্ছেন। প্রত্যেকেই লেখার জগতে খ্যাতি অর্জন করছেন। পরিশেষে বলছি- গত এক বছর থেকে ময়মনসিংহের ভালুকার কোনো এক প্রিয় মুখ কয়েকদিন পর পর আমাকে তার ফেসবুক থেকে ব্লক করে দেয়, তারপর তৃপ্তি লাভ করতে থাকে। যখন তাকে জিজ্ঞেস করি- কেন ব্লক করেছো? উত্তরে বলে এটা তোমার প্রাপ্য শাস্তি। কিন্তু সে জানে না আমাকে ব্লক করে দিলেও আমার অন্তর থেকে কোনোভাবেই আমি তাকে ব্লক করতে পারছি না। কারণ একটাই হে ভালুকার প্রিয়তমা তোমার জানা নেই, জেনে নাও, তোমার নামেই আমার আরোগ্য।
সৈয়দ রশিদ আলম, মিরপুর, ঢাকা
Bookmark and Share প্রিন্ট প্রিভিও | পিছনে 
নিয়মিত বিভাগ
  • [স ম্পা দ কী য়] নির্বাচন কমিশনকে নিরপেক্ষ হতে হবে
  •  মতামত সমূহ
    পিছনে 
     আপনার মতামত লিখুন
    English বাংলা
    নাম:
    ই-মেইল:
    মন্তব্য :

    Please enter the text shown in the image.
    বর্তমান সংথ্যা
    পুরানো সংথ্যা
    Click to see Archive
    Doshdik
     
     
     
    Home | About Us | Advertisement | Feedback | Contact Us | Archive